Breaking News

কি কি ডকুমেন্টস লাগবে লক্ষীর ভান্ডার প্রকল্পের ফর্ম ফিলাপ করতে? একটু ভুলেই বাতিল হবে ফর্ম! জানুন বিস্তারিত।

নিজস্ব প্রতিবেদন :-ইতিমধ্যে শুরু হয়ে গেছে গোটা রাজ্য জুড়ে দুয়ারের সরকার ক্যাম্প ।এবং এই ক্যাম্পের মধ্যে মোট ১৮ টি প্রকল্পের সুবিধা পাবে সাধারণ মানুষেরা । কৃষক বন্ধু শিক্ষাশ্রী স্বাস্থ্যসাথী পাড়ায় সমাধান লক্ষ্মী গন্ডার প্রকল্প জমির মিউটেশন থেকে শুরু করে একাধিক প্রকল্প আছে মানুষের দুয়ারে সরকার ক্যাম্প থেকে ।

তাই প্রতিনিয়ত এই সরকার ক্যাম্পে উপচে পড়ছে রীতিমতোকিন্তু । কিন্তু ঘোষণা এবং বাস্তব সম্পূর্ণ আলাদা । মূলত যে ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হতে পারেন এবং সেই সমস্যাগুলো সমাধান করবেন তা নিয়ে আজকের এই প্রতিবেদনটি পুরো প্রতিবেদন পড়ুন এবং আবেদনপত্র পূরণ করার সময় এই বিষয়গুলো মাথায় রাখুন।

কিন্তু এই আবেদন পত্র পূরণ করতে গিয়ে যে ধরনের সমস্যা গুলোর সম্মুখীন হতে পারেন আপনি সেই সমস্ত সমস্যার সমাধান নিয়ে আজকের এই প্রতিবেদনটি ।

১)আবেদনপত্রটি হাতে পাওয়ার পর প্রথমে আপনার সামনে ভেসে উঠবে দুয়ারে সরকার ক্যাম্প রেজিস্ট্রেশন নাম্বার । সেখানে আপনি কি পূরণ করবেন? সে অর্থে আপনাকে জানিয়ে রাখি যে সেটি শুধুমাত্র সরকারি আধিকারিকদের জন্য ।অর্থাৎ আপনি যখন আবেদনপত্রটি জমা দেবেন তখন অতি অবশ্যই আপনাকে কি রেজিস্ট্রেশন নাম্বার দেওয়া হবে । যদি কোন কারণে আপনাকে রেজিস্ট্রেশন নাম্বার না দেওয়া হয় তাহলে আপনি তৎক্ষণাৎ সেখানে দায়িত্বপ্রাপ্ত সরকারি আধিকারিকের সাথে যোগাযোগ করুন এই রেজিস্ট্রেশন নাম্বার ছাড়া কিন্তু এই আবেদনপত্রটি গ্রহণযোগ্য হবে না ।

২)দ্বিতীয় যে বিষয়টি যে স্বাস্থ্য সাথী কার্ড এর নাম্বার । যদি কোন কারণে আপনার স্বাস্থ্য না থেকে থাকে তাহলে অতি অবশ্যই আপনাকে দুয়ারে সরকার ক্যাম্পে সরকারি আধিকারিকের সাথে কথা বলতে হবে ।তারা যদি আবেদনপত্রটি জমা নিয়ে নেয় তাহলে ভালো কথা ।

৩) আপনাকে যে ব্যাংক একাউন্ট প্রদান করতে হবে সেই ব্যাংক অ্যাকাউন্ট অতি অবশ্যই আধার কার্ডের সাথে লিংক থাকতে হবে এবার আপনি কিভাবে বুঝবেন যে আপনার ব্যাংক কার্ডের সাথে আধার কার্ড লিঙ্ক রয়েছে কি না । সেটা আপনি বাড়িতে বসেই জানতে পারে যাবেন ।

৪)এরপর যে বিষয়টি সমস্যা আনবে সেটি হল ব্যাংক একাউন্ট এক্ষেত্রে আপনি জয়েন্ট একাউন্ট দেবেন নাকি সিঙ্গেল একাউন্ট দেবেন সে বিষয়ে চিন্তিত । তবে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে জানানো হয়েছে যে জয়েন্ট একাউন্ট এ ফাস্ট ফোল্ডারের নাম যদি মহিলার নামে থেকে থাকে বা আবেদনকারীর নাম থেকে থাকে তাহলে কিন্তু তা সে ব্যাংক একাউন্ট প্রদান করতে পারবে

সম্পূর্ণ আবেদনপত্রটি ক্যাপিটাল লেটার বড় হাতের অক্ষর দিয়ে পূরণ করতে হবে।

সাথে অবশ্যই আপনি নিজের কাছে রেখে দিন আধার কার্ডের জেরক্স ।।ভোটার কার্ড এর জেরক্স বেশকিছু পাসপোর্ট সাইজের রঙিন ছবি ব্যাংকের পাস বইয়ের জেরক্স এবং স্বাস্থ্য সাথী কার্ড এর জেরক্স

About kolkata buzz24x7

Check Also

‘আরআরআর’, ‘কেজিএফ’-এর মতো ‘অর্থহীন’ ছবি দেখবেন না, শ্রোতাদের অনুরোধ করলেন জুবিন

নিজস্ব প্রতিবেদন:বর্তমানে বলিউড ইন্ডাস্ট্রি বিভিন্ন চলচ্চিত্রে থেকেও বেশি পরিমাণে মানুষের মনে জায়গা করে নিয়েছে দক্ষিণের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.