Breaking News

ফ্যাক্টরিতে যেভাবে প্লাস্টিকের চিনি তৈরী হয়, যেভাবে চিনবেন নকল প্লাস্টিকের চিনি (রইলো ভিডিও)

নিজস্ব প্রতিবেদন:-সর্দি কাশির হাত থেকে রক্ষা পেতে বা দেহের মধ্যে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়িয়ে তুলতে অন্য একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হলো মধু । কিন্তু বর্তমান বাজারে যে সমস্ত মধুগুলি পাওয়া যায় সেগুলো কতখানি আসল তা নিয়ে রয়েছে অনেকখানি সংশয় । কারন বাজার এখন ভরে গেছে অসাধু ব্যবসায়ীদের । আসল মধু কে বিক্রি করে তা ঠিক ঠিকানা নেই আমাদের ।

আজকের এই প্রতিবেদনে জানাবো আমরা কিভাবে নকল মধু তৈরি করা হয় তার পাশাপাশি আসল এবং নকল মধু চেনার উপায় কি। । মধু সাধারণত দামি ব্র্যান্ডেড কোম্পানির হয়ে থাকে। যেগুলো খেলে বোঝা যায় ।তার পাশাপাশি নকল মধুগুলি এখন এত উন্নত করা হয়েছে যে আপনি বুঝতে পারবেন না ওটি নকল । প্রথমে জেনে নেব আমরা কিভাবে তৈরি করা হয় । এই নকল মধু ।

যেসব কোম্পানি নকল মধ্যে তৈরি করে তাদের কোম্পানিতে একটা বিশাল আকৃতির কন্টেনার থাকে । সে কন্টেনার এর মধ্যে প্রথমে কিছুটা চিনি তারা দেয় এবং তার মধ্যে জল দেয় । উল্লেখ্য বিষয় এটাই যে চিনি যদি ১০ কেজি দেওয়া হয় তাহলে সে ক্ষেত্রে জল দেওয়া হবে ৫ লিটার অর্থাৎ অর্ধেক। তারপরও সেটিকে অল্প তাপমাত্রায় অনেকক্ষণ ধরে গরম করা হয়। তার ফলে সেই মিশ্রণটির সোনালী হয়ে যায়। এই মিশ্রণটি উপর আরো একবার গরম জল ঢালা হয় এবং কিছুক্ষণ উত্তপ্ত করা হয়। তখন সেই মিশ্রণটির আসল মধুর মতন চলে আসে।

যখন এই প্রক্রিয়াটি পুরোপুরি সম্পূর্ণ হয়ে যায় তখন একটি বিশেষ নলের মাধ্যমে কনটেইনার থেকে মিশ্রণটি চলে আসে অন্য একটি কন্টেনারে । সেখান থেকে সেই মধুগুলি নির্দিষ্ট আকৃতি জারে ভর্তি করা হয় । শুধু মাত্র এখানেই শেষ নয় এবং সেগুলির মধ্যে উপর থেকে আসল মধু কিছুটা পরিমাণ ঢেলে দেওয়া হয় । তার সাথে ঢেলে দেওয়া হয় সামান্য একটা মৌচাক এর অংশ ।যাতে মানুষ বুঝতে পারে যে আসল মধু। এরপর সেগুলিকে বাজারে মাধ্যমে মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়া হয়। কিন্তু আপনি কিভাবে চিনবেন কোনটা আসল আর কোনটা নকল ? জানাবো আপনাদের বিস্তারিত।

যদি মধু কিনে আনার পর বাড়িতে আপনি পরীক্ষা করতে চান যে কোনটি আসল এবং কোনটি নকল তাহলে প্রথমে যে পদ্ধতিটি করতে হবে সেটি হল একটি জার এর মধ্যে বাজার থেকে কিনে আনা মধুটিকে একটি জারে ভরে ভালোভাবে ঢাকনা লাগান । এরপর সমগ্র জারটিকে উল্টো করে দেন । যদি উপর থেকে মধু অনবরত চুইয়ে চুইয়ে পড়ে তাহলে বুঝবে সেই আসল ।

দ্বিতীয় যে পদ্ধতিটি রয়েছে সেটি হল বাজার থেকে কিনে আনা মধুর মধ্যে একটা পেন্সিল পেন বা কাটি ডুবিয়ে তুলুন । যদি কাঠ বা পেন্সিল থেকে মধু চুয়ে চুয়ে পড়ে তাহলে সেটি আসল মধু আর । যদি বিন্দু বিন্দু করে অবিচ্ছিন্নভাবে পড়ে তাহলে জানবেন সেটি নকল মত। এছাড়াও আরও অনেক উপায় আছে তবে এই দুটি উপায়ে আপনি প্রাথমিকভাবে পরীক্ষা করতে পারবেন মধু আসল না নকল । তাহলে এরপর বাজার থেকে কোন মধু কিনে নিয়ে এলে অবশ্যই পরীক্ষা করুন আর দেখে নিন কোনটি আসল আর কোনটা নকল ।

About kolkata buzz24x7

Check Also

‘আরআরআর’, ‘কেজিএফ’-এর মতো ‘অর্থহীন’ ছবি দেখবেন না, শ্রোতাদের অনুরোধ করলেন জুবিন

নিজস্ব প্রতিবেদন:বর্তমানে বলিউড ইন্ডাস্ট্রি বিভিন্ন চলচ্চিত্রে থেকেও বেশি পরিমাণে মানুষের মনে জায়গা করে নিয়েছে দক্ষিণের …

Leave a Reply

Your email address will not be published.